ভাড়া পুননির্ধারণ’ করে ৩১ মে থেকে চলবে বাস

ভাড়া পুননির্ধারণ’ করে রাস্তায় গাড়ি নামাতে চাচ্ছেন বাস মালিকরা। আগামী ৩১ মে থেকে তারা নতুন ভাড়া কার্যকর করতে চাচ্ছেন। এছাড়াও স্বাস্থ্যবিধি মোতাবেক টার্মিনাল থেকে যাত্রী উঠানো ও কাউন্টার খোলা রাখা হবে বলেও জানান নেতারা।

ভাড়ার হার কেমন হবে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে কিভাবে টার্মিনাল থেকে যাত্রী ওঠানামা করা হবে তা নিয়ে বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। আগামী ২৯ মে, শুক্রবার সকাল ১১টায় ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। ২৮ মে, বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ বাস-ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও শ্যামলী পরিবহনের ম্যানেজিং ডিরেক্টর রাকেশ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এদিকে গাবতলী থেকে দেশের উত্তর ও পশ্চিমাঞ্চলে গাড়ি-বাস মালিকদের সংগঠন, বাংলাদেশ বাস-ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন, সায়েদাবাদ, মহাখালী, ফুলবাড়িয়াসহ কয়েকটি টার্মিনালের দূরপাল্লার রুটের বাস মালিকদের সংগঠন ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতিও একই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্লাহ জানান, সরকারের নির্দেশনার পর মালিকরা নিজেরা বসে এ বিষয়গুলো ঠিক করবেন। এরপর ভাড়াসহ সার্বিক বিষয় নিয়ে কাল বিকেল তিনটায় বনানীতে বিআরটিএর প্রধান কার্যালয়ে সরকারের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে মালিকদের বৈঠক হবে।

মহাখালী কেন্দ্রিক একজন বাস মালিক জানান, অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলতে গেলে ভাড়া অন্তত ৭০ যাত্রীর সমপরিমাণ ভাড়া তুলতে হবে। এ নিয়ে সরকারের সঙ্গে তাদের কোনো বৈঠক এখনো হয়নি। মালিক নেতারা চাচ্ছেন করোনা পরিস্থিতিতে সীমিত যাত্রী তুলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাসের সিট অনুযায়ীই ভাড়া নির্ধারণ করতে। এটাকেই তারা ‘ভাড়ার পুননির্ধারণ’ বলে উল্লেখ করছেন।

এর আগে ৩১ মে থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত গণপরিবহনগুলো কীভাবে চলবে সে বিষয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগ নির্দেশনা জারি করবে বলে বৃহস্পতিবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের এক আদেশে জানানো হয়েছে।