রূপগঞ্জে লেডি ডন নীলার অবৈধ অর্থের পাহাড়

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:
শেখ হাসিনা ক্রিকেট স্টেডিয়াম নাম হলেও এ নাম বদলে নীলা মার্কেট নামে প্রচারের মতো দুঃসাহস দেখাচ্ছে স্থানীয় উপজেলা পরিষদের বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফেরদৌসি আলম নীলা।


অভিযোগ রয়েছে ক্ষমতার অপব্যবহার আর অবৈধ টাকা ছড়িয়ে নীলা বাহিনী গড়ে তুলে হয়ে ওঠেছেন লেডি ডন। আর তার দাপুটে পূর্বাচলের শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম নাম পরিবর্তন করে নীলা মার্কেট প্রতিষ্ঠা করে সে।


সূত্র জানায়, বিগত ১০ বছর পূর্বে ফেরদৌসি আলম নীলা ছিলেন একটি এনজিও ব্র্যাকের মাঠকর্মী।সেখান থেকে প্রথমে নারী ইউপি সদস্য পরে ক্ষমতার পালাবদলে অবৈধ উপায় অবলম্বনে হয়ে যায় উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান। শুরু হয় পূর্বাচলের আশপাশে তার ক্ষমতার দাপট। এ দাপট বাড়াতে গড়ে তুলেন নীলা বাহীনি নামে স্থানীয় চাঁদাবাজ ও সন্ত্রাসীদের নিয়ে অঘোষিত একটি প্রভাবশালী চক্র। সেই চক্রের দ্বারা র্প্বূাচলে বেড়াতে আসা দর্শনার্থীদের জিন্মি করে টাকা আদায়সহ ওই এলাকার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে চাঁদা আদায়, প্লট জালিয়াতি, প্লটের প্রাচীর নির্মাণ, মাটিচুরি থেকে বিভিন্ন অপকর্মের হোতা বনে যায় নীলা। গড়ে তোলেন প্রধানমন্ত্রীর নামে থাকা ক্রিকেট স্টেডিয়ামের জমিতে নীলা মার্কেট।

এসব অভিযোগের পর রাজউক প্রায় ৩০ বার এ মার্কেট উচ্ছেদ করলেও লেডি ডন হিসেবে পরিচিত এই নীলার দাপুটে বারবার “নীলা মার্কেট” নামেই প্রচার করছে। তাঁর এমন কান্ডে চরম ক্ষোভ জানায় এলাকাবাসী । শুধূ তাই নয় অঢেল সম্পদের পাহাড়ের তালিকায় রয়েছে যমুনা ফিউচার পার্কের পেরিস গ্যালারি, ব্র্যাংক কিও ও জেন্টাল পার্ক নামে ৩টি অভিযাত পন্যের দোকান। নামে বেনামে দেশের বিভিন্ন স্থানে ছাড়াও রূপগঞ্জে রয়েছে বিপুল পরিমাণ জমি। ব্যাংক ও এফডিআরসহ তার নগদ অর্থের খবর আরো ভয়াবহ। রয়েছে রাজধানীর কুড়িল এলাকায় রেলওয়ের জমি দখল করে আলিসান বাড়ি।

TopUP