বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১১:৩৬ পূর্বাহ্ন

ফেসবুকে লোভনীয় অফারে প্রতারিত হচ্ছে সাধারণ মানুষ

প্রতিবেদকের নাম / ৯৯ শেয়ার
প্রকাশিত : সোমবার, ১৫ জুলাই, ২০১৯, ৫:৩৩ অপরাহ্ণ
People are cheated on the lucrative offer on Facebook
ছবি: ফেসবুক পেজ

0Shares

আজকাল অনলাইন বা ফেসবুকে চটকদার বিজ্ঞাপন দেখে অনেক সাধারণ গ্রাহক পণ্য কিনে নানাভাবে শিকার হচ্ছেন প্রতারণার। পণ্যের মূল্য পরিশোধ করলেও সময়মতো পণ্য সরবরাহ না করার অভিযোগ পাওয়া যায় তাদের বিরুদ্ধে। প্রতারক এই ব্যবসায়িরা চাহিদা অনুযায়ী সঠিক পণ্য সরবরাহ করে না আবার করলেও নিম্নমানের পণ্য সরবরাহ করার ঘটনা প্রায়ই ঘটছে। আর এ সবের বেশির ভাগ ঘটনাই ঘটছে ফেসবুক ব্যবহার করে। নামমাত্র টাকায় এসব প্রতারক চক্র তাদের ফেসবুক পেজ প্রমোট করে সাধারণ মানুষের কাছে পৌছে দিচ্ছে। অফারের নামে চালাচ্ছে অকল্পনীয় প্রতারণা।

ইদানীং ফেসবুক জুড়ে এসব প্রোমট করা পেজ চোখে পড়ছে। তাদের মধ্যে অন্যতম হলো ’নোকিয়া বাংলাদেশ’ যারা বিভিন্ন অফারের কথা বলে প্রতারিত করছে সাধারণ মানুষদের। কয়েকজন ভুক্তভোগীর সাথে কথা বলে জানা যায় তাদের ঠান্ডা মাথার এসকল প্রতারণনার কথা।

মো. রনি, থাকেন মিরপুর ১০ নম্বরে, ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দেখে অর্ডার করেন ’নোকিয়া ১১০০’ মডেলের ফোন কিন্তু তার পরিবর্তে তাকে দেয়া হয় চায়নার ৫স্টার কোম্পানির ফোন। পরে তাদেরকে এ বিষয় অবহিত করলে তারা তা ফেরত নিতে অস্বীকার করেন এবং ফেসবুকে ও মুঠোফোন নম্বর ব্লক করে দেন।

মো. রনি

অপরদিকে একই পেজ থেকে পন্য কিনেন রাজশাহীর শাকিল, তাকেও নোকিয়া ৮১১০’র পরিবর্তে দেয়া হয় ৫স্টার কোম্পানির ফোন যার মান খুবই নিম্ন মানের। পরিশোধিত অর্থ ফেরতের চুক্তি থাকলেও পরে তা অস্বীকার করে বসেন তারা এবং পরে যোগাযোগ করা হলে নানা অযুহাত দেখিয়ে কথা বলা থেকে বিরত থাকেন প্রতিষ্ঠানের ইনচার্জ মাহি।

ছবি: মেমো ও পন্যের অমিল

সরেজমিনে বিভিন্ন কুরিয়ার সার্ভিসগুলোয় গিয়ে দেখা যায়, ফেসবুক পেজের উপর ভিত্তি করে গড়ে ওঠা এসব প্রতিষ্ঠান কাউকেই কাঙ্খিত পন্য দিচ্ছে না। বরং নি¤œমান সম্পন্ন ও নষ্ট ফোন দিচ্ছেন গ্রাহকদের।

নোকিয়া বাংলাদেশের মতো আরো ফেসবুক পেজ ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান যেমন- আমার ডিল.কম, ব্রান্ড সপ, এবি টেলিকম, সপিং জোন বিডি, লনডন বাজার.কম, চয়েজবিডি.কম, উইন্টার কালেকশন, র্স্মাট ফ্যাশন, গ্যালাক্সি মোবাইল সপ, মোবাইল সপ, মোবাইল সলুশন বিডি, আমার সপ ৩৬০, নোকিয়া কালেকশন ২০১৯, ফ্যাশন গ্যালারিসহ এমন অনেক ফেসবুক পেজ যাদের অনেকে সুপার কপি বলে স্মার্ট ফোন বিক্রি করলেও ক্রেতারা পাচ্ছেন নষ্ট আর অন্য ব্রান্ডের পুরাতন ফোন। আর যারা অরিজিনাল নোকিয়া বলে বিজ্ঞাপন দিচ্ছেন তারা ক্রেতাদের কাছে পাঠাচ্ছেন রেপ্লিকা বা অন্য কোম্পানির ফোন।

অনলাইন বা ফেসবুকে কেনাকাটায় কিছু সাবধানতা অবলম্বন করা খুবই জরুরি-
১. শুধু ফেসবুক ভিত্তিক ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান থেকে পন্য না কেনাই ভাল;
২. পেজে ভালো রিভিউ এবং পন্য প্রদান করে মূল্য পরিশোধ ব্যবস্থা থাকলে অর্ডার করা যেতে পারে।
৩. যেসব পেজের পোস্টে কোনো নেগেটিভ/ সমালোচনামূলক মন্তব্য নেই তাদের একদমি বিশ্বাস করা ঠিক হবে না।
৪. অফিসের পূর্ণাঙ্গ ঠিকানা জানাতে অস্বীকৃতি জানালে তাদের থেকে দূরে থাকুন।
৫. ৬০% বা ৭০% ছাড়! এমন আজগুবি অফার দেখে একদমি পন্য কিনতে পা বাড়াবেন না।
৬. সর্বাপরি দেখে-বুঝে, জেনে তারপর কাঙ্খিত পন্যটি কিনুন, শুভ হোক অনলাইন কেনাকাটা।

তারপরেও যদি কোনো ভাবে প্রতারণার শিকার হন তবে অভিযোগ দায়ের করতে পারেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে,

 লিখিত অভিযোগ ফ্যাক্স, ই-মেইল, ওয়েব সাইট, ইত্যাদি ইলেক্ট্রনিক মাধ্যমে; বা অন্য কোন উপায়ে পাঠাতে হবে।
 অভিযোগের সাথে পণ্য বা সেবা ক্রয়ের রশিদ সংযুক্ত করতে হবে।
 অভিযোগকারী তাঁর পূর্ণাঙ্গ নাম, পিতা ও মাতার নাম, ঠিকানা, ফোন, ফ্যাক্স ও ই-মেইল নম্বর (যদি থাকে) এবং পেশা উল্লেখ করতে হবে।
 জাতীয় ভোক্তা অভিযোগ কেন্দ্র, টিসিবি ভবন- ৯ম তলা, ১ কারওয়ান বাজার ঢাকা, ফোন: ০১৭৭৭ ৭৫৩৬৬৮, ই-মেইল: nccc@dncrp.gov.bd


ডিজিটাল বাংলাদেশের অগ্রযাত্রায় অনলাইন ভিত্তিক বাজার ব্যবস্থা নিঃসন্দেহে বৈপ্লবিক পরির্বতন আনতে পারে। কিন্তু প্রশাসন ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থা যদি এখনি প্রতারকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেয় তবে এতো দিনে একটু একটু করে গড়ে উঠা এ বিশ্বাস ভেঙ্গে যাবে নিমিষেই।

এম আর/টেক টাইমস

0Shares


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ

Categories

এক ক্লিকে বিভাগের খবর