হুইপের পিএস ‘কোটিপতি’

অবৈধ জুয়া ও ক্যাসিনো ব্যবসা, চাঁদাবাজি, মাদক ব্যবসা আর তদবির বাণিজ্য করে কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছেন সরকারদলীয় হুইপ ও চট্টগ্রাম-১২ (পটিয়া) আসনের সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা (পিএস) নূর উর রশীদ চৌধুরী ওরফে এজাজ চৌধুরী।

শুধু চট্টগ্রামের ক্লাবগুলোতে চলা জুয়ার আসর থেকেই প্রতিদিন তার আয় ছিল ৫০ হাজার টাকা। অভিযোগ যাচাই-বাছাই আর প্রাথমিক অনুসন্ধানে এমন তথ্য পাওয়ার পর পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এজাজকে জিজ্ঞাবাদের জন্য তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) এজাজকে তলবি নোটিশ পাঠানো হয়। নোটিশ পাঠান দুদকের পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন। নূর উর রশীদ চৌধুরীকে ২১ জানুয়ারি রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে হাজির হতে বলা হয়েছে।

দুদক সূত্র জানায়, এজাজের পাশাপাশি তার বাবা আব্দুল মালেক, বড়ভাই সুলতান উর রশীদ চৌধুরী এবং স্ত্রী সুরাইয়া আক্তারের সম্পদেরও খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।

তাদের ব্যাংক হিসাবের তথ্য জানতে বাংলাদেশ ব্যাংকের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংক এ বিষয়ে বিভিন্ন ব্যাংকে চিঠি দিয়ে তথ্য চেয়েছে। ভূমি অফিস, সাবরেজিস্ট্রি অফিস ও বিআরটিতেও খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।