Categories
সিলেট

কুলাউড়ায় লাইন থেকে ট্রেনের ৪টি বগি খালে নিহত ৭, আহত ২৫০

সিলেট থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া আন্তঃনগর উপবন এক্সপ্রেস ভয়াবহ দুর্ঘটনার কবলে পড়েছে। রোববার রাত পৌনে ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। এতে ঘটনাস্থলে সাত জনের মৃত্যু হয়েছে এবং অন্তত ২৫০ জন যাত্রী আহতে হয়েছেন। এদের মধ্যে অনেকের অবস্থা গুরুতর।

রোববার রাত ১২টার দিকে কুলাউড়ার বরমচাল স্টেশনের পাশে ঢাকাগামী উপবনের বগি ছিটকে পড়ে। রাতে সিলেট স্টেশন থেকে যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্য ওই ট্রেনটি ছেড়ে যায়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাশেদুল ইসলাম জাগো নিউজকে জানান, ট্রেন দুর্ঘটনায় ৭ জন নিহত হয়েছে। আহতের সংখ্যা শতাধিক। অনেকে অ্যাম্বুলেন্স সিএনজিসহ যে যেভাবে পারছে আহতদের হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছে।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌছেছে। হতাহতদের উদ্ধারে কাজ করছে দমকল বাহিনীর ১২টি ইউনিট। পুলিশ তাদের সহযোগিতা করছে।

এই ট্রেনের যাত্রী আরটিভির স্টাফ রিপোর্টার আশিক মাহমুদ বলেন, ট্রেন দুর্ঘটনায় কয়েকজন হতাহত হয়েছেন। চরম দুর্ভোগে পড়েছেন ট্রেনটির যাত্রীরা।

কুলাউড়া রেলওয়ে থানার ওসি আব্দুল মালেক যুগান্তরকে বলেন, নিহতের কোন খবর পাইনি। শুনেছি ৩ জন লোক গুরুতর আহত হয়েছেন। তাদেরকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। আহতের সংখ্যা নির্দিষ্ট বলা যাচ্ছে না। তবে ধারণা করা হচ্ছে অনেক লোক আহত হয়েছেন।

তিনি জানান, স্থানীয় জনতাকে সঙ্গে নিয়ে ফায়ার সার্ভিস ও রেলওয়ে পুলিশ প্রাথমিক উদ্ধার কাজ শুরু করেছে।

খবর পেয়ে মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক তোফায়েল ইসলাম ও পুলিশ সুপার শাহজালাল ঘটনাস্থল এবং হাসপাতাল পরিদর্শন করেন। এছাড়া ঘটনাস্থলেও বিজিবিও রয়েছে।

Categories
ধর্ম ও জীবন সিলেট

মৌলভীবাজার ঐতিহাসিক প্রাচীন স্থাপত্ গয়ঘর খোজার মসজিদ।

জোবায়ের আহমদ
মৌলভীবাজার।

মৌলভীবাজারের ঐতিহাসিক গয়ঘর খোজার মসজিদ। প্রাচীন স্থাপত্যকলার এক অনন্য নিদর্শন মৌলভীবাজারের মোস্তফাপুর ইউনিয়নের গয়ঘর গ্রামে।
খোজার মসজিদ নির্মাণ করা হয় সুলতান বরবক শাহের ছেলে সুলতান শামসউদ্দীন ইউছুফ শাহর আমলে। হাজি আমীরের পৌত্র ও সেই সময়ের মন্ত্রী মজলিস আলম ১৪৭৬ খ্রিষ্টাব্দে নির্মাণ করেন এটি। সিলেটের হজরত শাহজালালের মসজিদ ও খোজার মসজিদের শিলালিপিতে উল্লে­খ থাকা মজলিস আলম একই ব্যক্তি। মসজিদ দুটি নির্মিত হয়েছিল চার বছরের ব্যবধানে।
মৌলভীবাজার শহর থেকে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার দূরে মোস্তফাপুর ইউনিয়নের গয়ঘর গ্রামে একটি টিলার মতো স্থানে খোজার মসজিদের অবস্থান। দেয়ালের শুভ্র রঙে দূর থেকেও জ্বলজ্বল করে মসজিদটি। এর মেঝে ও গম্বুজে টাইলস লাগানো। তিনটি বড় দরজা ও ছয়টি ছোট দরজা। ভেতরে পূর্ব দিকের স্তম্ভে ‘বাঘের পায়ের ছাপ।
জানাযায়, এ মসজিদ যখন নির্মাণ করা হচ্ছিল, তখন ঘন জঙ্গলে পূর্ণ ছিল এ এলাকা। বিচরণ ছিল বাঘের। হয়তো সে সময়ই কোনো বাঘ মসজিদের কাঁচা দেয়ালে থাবা বসিয়েছিল। কয়েক শ বছর ধরে টিকে আছে সেই চিহ্ন। মসজিদের পছিম দেওয়ালে দিকে আরবি লেখা,লতা পাতার ছবি আঁকা। মূল মসজিদ দৈর্ঘ্য ও প্রস্থে ২৪ হাত করে। গম্বুজ ১৮ ফুট উঁচু। জানাযায়, মসজিদের বাইরে দুটি বড় কষ্টিপাথর ছিল। প্রচলিত আছে, এগুলো রাতের আঁধারে ঘোরাফেরা করত। তাই মানুষ পাথর দুটিকে মনে করত জীবন্ত। একটি পাথর একসময় ‘মারা গেলে’ সেটি পাশের দিঘিতে ডুবিয়ে দেওয়া হয়। অপরটি পরে চুরি হয়ে যায়।

খোজার মসজিদের নামকরণ নিয়ে পরিষ্কার তথ্য মেলে না। তবে প্রচলিত আছে, মানসিংহের কাছ থেকে বিতাড়িত হয়ে পথে পাঠান বীর খাজা উসমান মসজিদটিতে আশ্রয় নিয়েছিলেন। সেই থেকে খাজা নামের অপভ্রংশ ‘খোজা’ থেকে এর নামকরণ।
জানাযায়, ১৯৮৪ সালের পর অপরিকল্পিতভাবে সংস্কার শুরু হয় এ মসজিদের। মুসল্লিদের স্থান সংকুলান হয় না বলে পূর্ব দিকে মসজিদের জায়গা বাড়ানো হয়। প্রাচীন স্থাপত্যকলার নিদর্শন হিসেবে যথাযথ রীতি মেনে যেভাবে এর সংস্কার দরকার ছিল, তা করা হয়নি। বর্তমানে মসজিদের পুরোনো সৌন্দর্যের অনেকটাই নষ্ট হয়ে গেছে।

Categories
নির্বাচন সিলেট

সিলেট সিটির দুই কেন্দ্রে ভোট চলছে।

দ্যাটাইমসঅফবিডি.কম: ঢাকা -শনিবার -১১ আগস্ট ২০১৮ : ২৭ শ্রাবণ ১৪২৫

সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে স্থগিত দুই কেন্দ্র— নগরীর ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের গাজী বুরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের হবিনন্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে পুনরায় ভোট গ্রহণ করা হচ্ছে।

শনিবার সকাল ৮টায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে, যা একটানা চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। ভোট গ্রহণের পর গণনা শেষে মেয়র পদে বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হবে।

নগরীর ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের হবিনন্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র এলাকায় শনিবার সকাল থেকে ভারী বৃষ্টি হয়। তবে বৃষ্টির মাঝেও ছাতা মাথায় নারী ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে গিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে।

প্রিসাইডিং অফিসার মাহবুবুর রহমান জানান, সকাল ১০টা পর্যন্ত ভোট কেন্দ্রের আটটি কক্ষে প্রায় দুইশ’ ভোট পড়েছে।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার পরিতোষ ঘোষ জানান, শান্তিপূর্ণভাবে দুই কেন্দ্রে ভোট চলছে। ভোট কেন্দ্রগুলোতে এবার বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

এদিকে হবিনন্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের চার এজেন্টকে বের করে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এদের মধ্যে একজন সতন্ত্র মেয়র প্রার্থীর (জামায়াত) এবং বাকি তিন কাউন্সিলর প্রার্থীদের এজেন্ট ছিলেন।

এ বিষয়ে প্রিজাইডিং অফিসার জানান, নিয়ম অনুযায়ী, এজেন্ট হতে হলে এই কেন্দ্রের ভোটার হতে হবে। কিন্তু চারজনের কেউই এই কেন্দ্রের ভোটার না হওয়ায় তাদের বের করে দেওয়া হয়েছে।

গত ৩০ জুলাই সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোট গ্রহণ করা হয়। এতে ১৩৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ১৩২টি কেন্দ্রের ফলে এগিয়ে রয়েছেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের চেয়ে ৪ হাজার ৬২৬ ভোটে এগিয়ে আছেন তিনি। ১৩২টি কেন্দ্রের ভোট গণনায় আরিফুল হক চৌধুরী ৯০ হাজার ৪৯৬ ভোট এবং বদর উদ্দিন আহমদ কামরান ৮৫ হাজার ৮৭০ ভোট পেয়েছেন।

শনিবার যে দুটি কেন্দ্রে পুনরায় ভোটগ্রহণ হচ্ছে, তাতে মোট চার হাজার ৭৮৭ ভোটের মধ্যে মাত্র ৮১ ভোট পেলেই মেয়র পদ ধরে রাখতে সমর্থ হবেন আরিফুল হক। তবে এই দুটি কেন্দ্রের মোট ভোটারের মধ্যে মারা যাওয়ায় ও প্রবাসে থাকায় ৩০১ জন ভোট দিতে পারবেন না বলে দাবি করেছেন তিনি।

গত বৃহস্পতিবার আরিফুল হক প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে. এম. নুরুল হুদার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে মৃত ও প্রবাসীদের ভোট ঠেকানোর আহ্বান জানিয়েছেন। এমন হলে শনিবার আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান স্থগিত দুটি কেন্দ্রের সব ভোট পেলেও প্রতিদ্বন্দ্বী থেকে ১৪০ ভোটে পিছিয়ে থাকবেন।

৩০ জুলাই সিলেট নির্বাচনের ভোট চলাকালে গোলযোগের কারণে নগরীর ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের গাজী বুরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের হবিনন্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছিল। শনিবার মেয়র পদের পাশাপাশি এই দুই কেন্দ্রে সাধারণ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদেও ভোটগ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আলীমুজ্জামান।

নগরীর ২৪ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে তিনজন এবং ২৭ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে চারজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এই দুটি কেন্দ্রের জন্য সংরক্ষিত ৮ নম্বর ওয়ার্ডের পাঁচজন নারী এবং সংরক্ষিত ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ৮ জন নারী প্রার্থীর ভাগ্য ঝুলে আছে।

এ ছাড়া সংরক্ষিত ৭ নম্বর (সাধারণ ওয়ার্ড ১৯, ২০ ও ২১) ওয়ার্ডের ১৪টি কেন্দ্রে ভোট গণনা শেষে প্রার্থী নাজনীন আক্তার কনা ও নার্গিস সুলতানার ভোট সমান হওয়ায় তাদের মধ্যেও পুনরায় ভোট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ৩০ জুলাই অনুষ্ঠিত ভোটে তারা দু’জনেই সমান চার হাজার ১৫৫ ভোট পেয়েছেন।

এই ওয়ার্ডগুলোতে সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণের জন্য সার্বিক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। তিনি বলেন, পুলিশ, র‌্যাব ও আনসারের পাশাপাশি দুই প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। এ ছাড়া নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত মাঠে আছে।

প্রসঙ্গত, সিলেট সিটি নির্বাচনে এবারে মোট ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ২১ হাজার ৭৩২ জন; যাদের মেয়র পদে এখন পর্যন্ত ভোট দিয়েছেন এক লাখ ৯৮ হাজার ৬৫৬ জন। অন্যদিকে মেয়র পদে সাতজন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৯৬ জন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৬২ জন প্রার্থী হয়েছিলেন। সূত্র:সমকাল

Categories
সিলেট

কামরান বিজয়ী হলে কমিটি পাবে জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগ ।

দ্যাটাইমসঅফবিডি.কম: ঢাকা, রবিবার, ২৯ জুলাই ২০১৮

সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের শেষ পথসভা শনিবার নগরীর ক্বীনব্রিজ এলাকায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা থেকে শুরু হওয়া এই সভা চলে রাত ১১টা পর্যন্ত।

সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, কেন্দ্রীয় সদস্য অধ্যাপক রফিকুর রহমানসহ সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

সভায় বক্তব্য প্রদানকালে আহমদ হোসেন ছাত্রলীগ নেতাদের উদ্দেশ্য করে বলেন- ছাত্রলীগ হচ্ছে আওয়ামী লীগের সেনাবাহিনী। আর কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসেন হচ্ছেন তাদের সেনাপতি। তাই নির্বাচনে সবচেয়ে বেশী ভুমিকা রাখতে হবে ছাত্রলীগকে।

তিনি বলেন সিলেটে কামরানকে বিজয়ী করার দায়িত্ব ছাত্রলীগের। বদর উদ্দিন কামরান বিজয়ী হলে আগামী দুই মাসের মধ্যে তিনি সিলেট জেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি এবং মহানগর পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের ব্যবস্থা করে দেবেন।

এসময় উপস্থিত ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা আহমদ হোসেনের বক্তব্যকে স্বাগত জানিয়ে ‘নৌকা, নৌকা’ বলে শ্লোগান দিতে থাকেন।

সূত্র: সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম

Categories
পৌর নির্বাচন রাজনীতি সিলেট

সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রচারণা করছেন ছাত্রলীগের গোলাম রাব্বানী।

দ্যাটাইমসঅফবিডি.কম: সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের সমর্থনে  গণসংযোগ ও প্রচারণা করেছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের শিক্ষা ও পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।আজ সোমবার স্থানীয় নেতা কর্মীদের নিয়ে তিনি প্রচারণা কার্যক্রম করেন।
আজ প্রচারনা করেন সিলেট সিটি কর্পোরেশন এর ২৬ ও ২৭ নং ওয়ার্ড।এ সময় স্থানীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে শেখ হাসিনার প্রার্থী বদর উদ্দীন আহমেদ কামরান এর নৌকার  পক্ষে ভোটারদের কাছে তাদের মূল্যবান ভোট ও দোয়া চায়।
এসময় তিনি উন্নয়নের স্বার্থে জনগণকে নৌকায় ভোট দেওয়ার অনুরোধ করেন এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরানকে নির্বাচিত করার লক্ষে নেতা কর্মীদের একাট্টা এক হয়ে নগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডে কাজ করার আহ্বান জানান।
গোলাম রাব্বানী জানান, তিন সিটি নির্বাচনের ফলাফলের উপর ভিত্তি করে আগামী জাতীয় নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। তাই সিটি নির্বাচনকে গুরুত্ব দিয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রতিটি ইউনিটের নেতা কর্মীদের মাঠে কাজ করতে হবে।
এ সময় সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
দ্যাটাইমসঅফবিডি.কম/১৬/০৭/১৮/শফিক
Categories
নির্বাচন সিলেট

সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে গণসংযোগ ও প্রচারণা করেছেন ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক জাকির।

দ্যাটাইমসঅফবিডি.কম: সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের সমর্থনে দ্বিতীয় দিনের মতো গণসংযোগ ও প্রচারণা করেছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসেন।

শুক্রবার জুমআ নামাজের পর হযরত শাহজালাল (র.) এর মাজার থেকে স্থানীয় নেতা কর্মীদের নিয়ে তিনি প্রচারণা কার্যক্রম করেন।

এসময় তিনি উন্নয়নের স্বার্থে জনগণকে নৌকায় ভোট দেওয়ার অনুরোধ করেন এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরানকে নির্বাচিত করার লক্ষে নেতা কর্মীদের একাট্টা এক হয়ে নগরীর ২৭টি ওয়ার্ডে কাজ করার আহ্বান জানান।

জাকির হোসেন বলেন, তিন সিটি নির্বাচনের ফলাফলের উপর ভিত্তি করে আগামী জাতীয় নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। তাই সিটি নির্বাচনকে গুরুত্ব দিয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রতিটি ইউনিটের নেতা কর্মীদের মাঠে কাজ করতে হবে।

এসময় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ, সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Categories
সিলেট

ফসলের ব্যাপক ক্ষতি, কুশিয়ারার পানি বিপদসীমার ওপরে।

মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ

মৌলভীবাজারে মনু নদীর পানি কমলেও বিপদসীমার ৪০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে কুশিয়ারা নদীর পানি। ফলে রাজনগর উপজেলার কালাইকুনা এলাকায় বাঁধ ভাঙার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। স্থানীয়রা বলছেন, বাঁধটি ভেঙে গেলে হাওর পাড়ের গ্রামগুলো বড় ধরনের বন্যার কবলে পড়বে।

ওয়াকিবহাল সূত্র বলছে, এর আগেও কুশিয়ারা নদীর বাঁধ ভাঙা এলাকা দিয়ে পানি প্রবেশ করা শুরু হয়েছিল এবং তখন পানি উন্নয়ন বোর্ড জায়গাটি মেরামত করেছিল। কিন্তু এখন আবার নতুন করে ঝুঁকি তৈরি হয়েছে। গতকাল সরেজমিনে রাজনগর উপজেলার বন্যায় তলিয়ে যাওয়া আকুয়া, কামারচাক, কোনাগাঁও, মহলালসহ বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, এসব এলাকার কৃষকদের রোপণকৃত ধানি ফসল ও আমন ধানের বীজতলা সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে গেছে। আকুয়া গ্রামের আবদিন খান, শাহাজান খানসহ অনেকেই জানান, বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় আউস ক্ষেত নষ্ট হয়ে গেছে।আরও এলাকা তলিয়ে যাওয়ার শঙ্কা আমন ধানের বীজতলাও নষ্ট হয়েছে। এখন কৃষকরা বিপাকে রয়েছেন, কারণ তাদের হাতে বীজও নেই। একই এলাকার নজিম মিয়া বলেন, ঘরে যে বীজ ছিল তা বন্যার পানিতে ভেসে গেছে। এখন আমরা বীজ কোথায় পাব, কীভাবে কৃষিখেত করব— তা নিয়ে দিশেহারা অবস্থায় রয়েছি। মহলাল গ্রামের আজাদ মিয়া জানান, ভয়ংকর বন্যায় তার ৬ বিঘা আউস খেত নষ্ট হয়ে গেছে। এদিকে মনু নদীর ভাঙন এলাকা দিয়ে বেরিয়ে যাওয়া পানি এশিয়ার বৃহত্তম হাওর হাকালুকি ও রাজনগরের কাউয়াদিঘিতে গিয়ে পড়ায় হাওরাঞ্চলেও অস্বাভাবিকভাবে পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে জানা গেছে। জেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, অকাল বন্যায় জেলার ৪ টি উপজেলায় ফসলি জমি ও বীজতলা মিলিয়ে মোট ৩৪২০ হেক্টর তলিয়ে গিয়েছিল। এখনো পানির নিচে রয়েছে ১৪৬০ হেক্টর জমি। এর মধ্যে রয়েছে কুলাউড়া উপজেলায় ৬০০ হেক্টর, রাজনগর উপজেলায় ৪৫০ হেক্টর, কমলগঞ্জ উপজেলায় ২৫০ হেক্টর, সদর উপজেলায় ১৬০ হেক্টর। এ বছর আউশের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৪৯৮০৯ হেক্টর, আবাদ হয়েছে ৪৯৪৪০ হেক্টরে। ১৫০ হেক্টর জমির গ্রীষ্মকালীন সবজি তলিয়ে গিয়েছিল, এখনো পানির নিচে রয়েছে ৪৫ হেক্টর জমি। এ ব্যাপারে, জেলা কৃষি প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা কাজী লুত্ফুল বারী বলেন, আমরা আশাবাদী দুই-এক দিনের মধ্যে পানি আরও কমে গেলে তলিয়ে যাওয়া অর্ধেকের বেশি ফসল রক্ষা পেতে পারে। ধারণা পাওয়া গেছে, টানা বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা ভারতের পাহাড়ি ঢলে মনু নদ ও ধলাই নদীর বাঁধ ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাঁধ ভেঙে মৌলভীবাজার পৌরসভা, মৌলভীবাজার সদর উপজেলাসহ, জেলার কুলাউড়া, কমলগঞ্জ, রাজনগর উপজেলার ৩০টি ইউনিয়নের মানুষ ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। নষ্ট হয়েছে তাদের আউস ধান, আমন ধানের বীজ তলাসহ সবজি খেত। আকস্মিক বন্যায় অনেকেই হারিয়েছেন তাদের বসতভিটা।

দ্যাটাইমসঅফবিডি.কম/২২/০৬/১৮

Categories
সিলেট

বন্যায় ডুবেছে গ্রামের পর গ্রাম………

কয়েকদিনের টানা বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে মনু নদ ও ধলাই নদীর পানি বিপদসীমা অতিক্রম করে নদীর বাঁধ ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাঁধ ভেঙে গেছে। ঈদের আগের দিন এ ঘটনা ঘটেছে। এতে মৌলভীবাজার পৌরসভা, মৌলভীবাজার সদর উপজেলাসহ, জেলার কুলাউড়া, কমলগঞ্জ, রাজনগর উপজেলার ৩০টি ইউনিয়নের ২৫টি স্থান ভেঙে যায়। এ অবস্থায় পানি প্রবেশ করে প্রায় শতাধিক গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দী হয়ে আছেন ৪ উপজেলার প্রায় দুই লক্ষাধিক মানুষ।Image result for বন্যায় ডুবেছে গ্রামের পর গ্রাম.........

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, এ বন্যায় ডুবে গেছে আউস ধান, সবজি ক্ষেতসহ গ্রামীণ সড়ক। এতে চরম দুর্ভোগে পোহাচ্ছেন এলাকাবাসী। তলিয়ে গেছে অসংখ্য বাসা-বাড়ি, দোকানপাট। বিধ্বস্ত হয়েছে সহস্রাধিক কাঁচা ঘর। ফলে মানুষ ঈদের খুশি বিসর্জন দিয়ে নিজেদের জানমাল গবাদি পশু ও মালামাল রক্ষায় ব্যস্ত থেকেছেন। জানা গেছে, বন্যার পানিতে ডুবে কমলগঞ্জ উপজেলায় শিশুসহ ৫ জন ও কুলাউড়া উপজেলায় ২ জন এবং রাজনগরে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন কমলগঞ্জ উপজেলার কাঁঠালকান্দি গ্রামের আবদুুল ছত্তার, তার ছেলে আবদুল করিম, আলীনগর বস্তির সেলিম মিয়া, শমশেরনগর ভাদাইরদেউলে প্রতিবন্ধী রমজান আলী ও রহিমপুর ইউনিয়নের প্রতাপী গ্রামে মিছির মিয়ার দেড় বছরের শিশু সন্তান ছাদির মিয়া রাজনগর উপজেলার সুনামপুর গ্রামের ইমাদ উদ্দিন (৫)। বন্যায় আটকেপড়া লোকদের উদ্ধারে কয়েকটি স্থানে উদ্ধার অভিযানে অংশ নিয়েছে সেনাবাহিনীসহ সরকারি কর্মকর্তা ও স্বেচ্ছাসেবীরা। আরও জানা গেছে, পানির স্রোতে ভারতের কৈলাশহরে যাতায়াতে শমশেরনগর-চাতলাপুর সড়কে কালভার্ট ব্রিজ ধসে পড়ে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। শহরের সঙ্গে সিলেট ও চার উপজেলার সড়ক যোগাযোগও বিছিন্ন রয়েছে। মৌলভীবাজার পৌর শহরে পানি প্রবেশ করে সরকারি চারটি খাদ্য গুদামের মজুদ খাদ্যও নষ্ট হয়েছে। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, বন্যা কবলিত মানুষের জন্য ১৭৮০ মেট্রিক টন চাল, ৯,১৯,০০০ টাকা নগদ বরাদ্দ দিয়েছেন জেলা প্রশাসক। বন্যায় দুর্গতদের জন্য ৫০টি আশ্রয়ণ কেন্দ স্থাপন করা হয়েছে। সেনাবাহিনীর বিশেষ ৪টি টিম দুর্গত এলাকা থেকে পানিবন্দী মানুষ উদ্ধারে সহযোগিতা করছে। মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক তোফায়েল ইসলাম বলেন, বন্যার দুর্গতদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করা হচ্ছে। এছাড়া দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রয়োজনীয় ত্রাণ রয়েছে। আরও ত্রাণ বরাদ্দের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হয়েছে ।

Categories
সিলেট

নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে মারধরের অভিযোগে প্রধান শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ।

সিলেটে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে মারধরের অভিযোগে প্রধান শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সিলেট সদর উপজেলার টুলটিকর ইউনিয়নের কুশিঘাটস্থ হাজী শফিক হাইস্কুলে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষকের নাম আব্দুল হাসিব।

জানা যায়, রমজান মাস উপলক্ষে নিয়মিত ক্লাস বন্ধ থাকলেও হাজী শফিক হাইস্কুলে কোচিং ক্লাস চলছিল। বৃহস্পতিবার ক্লাসে নবম শ্রেণির এক ছাত্রী পড়া না পারায় তাকে বেধড়ক মারধর করেন প্রধান শিক্ষক। এ খবর জানাজানি হওয়ায় ছাত্রীর অভিভাবক ও স্থানীয় লোকজন স্কুলে ছুটে আসেন। তারা শিক্ষককে তালাবদ্ধ করে রাখেন। খবর পেয়ে শাহপরান থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শিক্ষক আব্দুল হাসিবকে থানায় নিয়ে যায়।

স্কুল কমিটির সভাপতি মো. শাজাহান বলেন, গত এসএসসি পরীক্ষায় ফলাফল খারাপ হওয়ায় এবার রমজানে কোচিং ক্লাস চলছিল। এক ছাত্রী পড়া না পারায় তাকে শাসন করেন প্রধান শিক্ষক। পরে স্থানীয়রা এসে তাকে তালাবদ্ধ করে রাখে।

শাহপরান থানার ওসি আখতার হোসেন বলেন, ছাত্রীকে মারধরের অভিযোগে প্রধান শিক্ষক আব্দুল হাসিবকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

দ্যা টাইমসঅফবিডিডটকম/০৭/০৬/১৮